পারব না কে, না বলো। নিজেকে খুজে বের করো পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী ব্যাক্তি দের একজন-- জেফ বেজোস ভয়কে করতে হবে জয় হার না মানার গল্প  গুগল ও ফেজবুকের প্রতিষ্ঠাতা সবচেয়ে বেস্ট মটিভেশনাল স্পিকার-  সন্দীপ মহেশ্বরী

Thursday, April 11, 2019

নির্জন দ্বীপ-- ১ম পর্ব

প্রকৃতি প্রেমিক আলভি। বয়স ২৪ এরকাছাকাছি পেশায় একজন ডিটেকটিভ।
কিন্তু উনার কাজ গুলা ছিল অন্য দেরথেকে আলাদা। মুলত বিভিন্ন ভুতুড়েকাজের রহস্য উদঘটন টাই ছিল উনার কাছ।


যেমন কোন ভূতুড়ে বাড়িতে থেকে দেখা কোন কবরস্থানে থাকা কোন মন্দিরের,আবার অনেক সময় শশ্মান ঘাটের কোন অসস্বাবাভিক ঘটনার রহস্য উদঘটনের জন্য তিনি কাজ করতেন। 


কাজের সুবিধার জন্য তিনি তার পছন্দ মত তার বন্ধদের মাঝ থেকে ১৫ জনকে বেছে নিয়েছিলেন। যাদের মধ্য জন মেয়ে ও১০ জন ছেলে। সকল কাজ তারা সবাই একসাথে থেকেই করেন। একদিন আলভির কাছে উর্ধতন কর্মকর্তার ফোন আসল " আলভি তোমার জন্য নতুন একটা মিশন আছে, সেটা হল তোমমাকে এবার শহর থেকে দূরে সাগরের মধ্যেে যেতে হবে সেখানকার এক দ্বীপ সম্পর্কে জানতে হবে। তুমি অফিসে দেখা কর" আলভি অফিসে দেখা করার পর ঐ দ্বীপ। 

সম্পর্কে বেশ কিছু তথ্য যাওয়ার খরচ নিয়ে নিল। তার উর্ধতন কর্মকর্তা তাকে সব বুঝিয়ে দিলেন আর সেই অন্তিম বাক্যটি শোনালেন" আলভি দ্বীপ আজ পযর্ন্ত যারা গেছে তারা কেউ ফিরে আসেনি " আলভি তার বন্ধুদের বলল। কেউ কেন ওখান থেকে ফিরে আসেনা সেটাআমরা বের করব। কাল রাতে সবাই রওনা হবে। শহর থেকে বাইরে বেরতে বেরতে পরের দিন সকাল হয়ে গেল।
দুপুর নাগাদতারা সমুদ্রের তীরে পৌছে গেল। সেখান কার সৌন্দর্যে আলভি মুগ্ধ হল মনে মনে বস কে একবার ধন্যবাদ দিল।এবার শুধু তাদের পথ চলার পালা। ট্রলার ভাড়া করেরে সবাই যাত্রা শুরু কররল নির্জন দ্বীপ উদ্দ্যেশে। দুর থেকে দেখেই। আলভি বুঝে গেল কেন ওখান থেকে কেউ ফিরে আসে না। যেখান থেকে দ্বীপটি নজরে পড়ল। সেখান থেকেই স্রোত বন্ধ হয়ে গেল
সাগরের। ঠান্ডা বাতাস বইতে লাগল। 

চারিদিকে কোন শব্দ নেই কেমন যেন মৃত্যুপুরির মত অবস্থা। একটু কাছেপৌছাতেই বাতাসে কে যেন স্বাগতম বার্তা পাঠিয়ে দিল তাদের জনন্য। আজব তো শোনার ভুল নয় শুধু আলভিই নয় সকলে শুনল সেই বার্তা। এবার অবাক হওয়ার পালা এল সবার। কার এই কনন্ঠ অনেকটা মেয়েলী কন্ঠ। 

এসব ভাবতেভাবতে তারা পৌছে গেল দ্বীপ এ। দ্বীপ পৌছে আর একবার অবাক হওয়ার পালা। সেখানে কোনো কিছু থাকতে পারে এটা কারো বিশ্বাস হল না। চারিদিকে যেন গাছ গুলোকে কেউ সাজজিয়ে রেখেছে। পাখির ডাক, চারিদিকে ফুটে আছে ফুল
কেউ নিয়য়মিত এর দেখাশুনা করেন।


0 Comments:

Post a Comment