পারব না কে, না বলো। নিজেকে খুজে বের করো পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী ব্যাক্তি দের একজন-- জেফ বেজোস ভয়কে করতে হবে জয় হার না মানার গল্প  গুগল ও ফেজবুকের প্রতিষ্ঠাতা সবচেয়ে বেস্ট মটিভেশনাল স্পিকার-  সন্দীপ মহেশ্বরী

Thursday, July 25, 2019

লটকের জোক্স (পর্ব-- 6)






বাংলাই ফানি জোক্স এবার লটকের জোক্সের ৬ষ্ঠ পর্ব নিয়ে এসেছে।। জোক্স, জিবনী, ফানি কথা, ভালবাসার গল্প সব কিছুই থাকছে আপনাদের জন্য।।


লটকের আর বন্ধুর মাঝে কথা হচ্ছে::

 বন্ধু:: কিরে লটকে  এই রাত্তির বেলা লম্প ধরাই কি খুজতেছিস?
লটকে: আর বলিস না, সন্ধ্যা থেকেই তো কারেন নেই। এখন  একটা সিগারেট খাওয়ার বিরাট নেশা লেগেছে। তা কখন থেকে দিয়াশালাই টা খুজজি তা খুজেই পাচ্ছি না।
লটকে:: তা তুই লম্পর আগুন নিয়ে কি সর্গে যাবি।।



লটকের আর বন্ধুর মাঝে কথা হচ্ছে::

 বন্ধু:: কিরে  লটকে কি ভাবতেছিস রে??
লটকে:: আমি ভাবছি, মেয়েরা যদি কাউকে খুন করে আর তুই যদি একটু হুমকি ধামকি দিস তাহলেই স্বিকার করে নেবে।
কিন্তু একটা কথা মেয়েরা জিবনের স্বিকার করবে না।
বন্ধু:: সে  আবার কি কথা?
লটকে:: যদি বলিস যে তুমি কোন ক্রিম মেখে ফরসা  হয়েছো গো??


লটকে আর রাস্তার এক মেয়ের মাঝে কথা হচ্ছে::

মেয়ে::: ওহো কিযে গরম এই গরমে যদি এখন ফ্যানের তলায় থাকতে পারতাম অনেক ভালো হতো।
লটকে:: আরে বৌদি  !! আপনাকে তো আমি চিনি। আপনি না সেই কমেডি করেন??
মেয়ে:: হ্যা আমিই সে।।
লটকে:: তাহলে তো আমি  আপনার বিরাট বড় ফ্যান। আপনি আমার তলায় থাকবেন?


লটকে আর তার বৌ এর মাঝে কথা হচ্ছে::

বৌ: তুমি বিয়ের আগে আমাকে খুব ভালোবাসতে এখন আর বাসোনা।।
লটকে:: কেন? বিয়ের আগে তো আমি অনেক মেয়েকেই ভালোবেসেছি। কিন্তু বিয়ে করিনি। কারণ কি জানো ।। আমি বিয়ে হওয়া মেয়েদের কে  একদমই পছন্দ করি না। তোমার বেলাইও তাই।


লটকে আর বন্ধু মাঝে কথা হচ্ছে::

বন্ধু:: এই লটকে!! তোর বাড়ির আশে পাশের বাড়িতে ভালো মন্দ রান্না বাড়া হলে তুই যেয়ে খেয়ে আসিছ আমরা গেলে তো দেয় না কারণ কি??
লটকে:: এর কোন কারণ নেই।। একটা গোপন বুদ্ধি আছে তোরে শিখানো যাবে না।
বন্ধু:: আরে না শিখিয়ে দে না।।
লটকে:: ঠিক আছে শোন যেই বাড়িতে ভালো পিঠে রান্না হবে। সেই বাড়িতে তুই তোর ছোট ছেলে নিয়ে যাবি। এখন তোর ছেলে পিঠে দেখে কানবে। তার হাতে িএকটা পিঠে দেবে বাড়িওয়ালা। এবার তুই তোর ছেলের পেটে একটা চিমটি দিবি। আরো জোরে  কান্না করে উঠবে। এবার যখন জিঙ্ঘেস করবে কানছে কেন। তুই বলবি আমার ছেলে তো আবার আমি না খেলে খাই না তাই কাদছে।।  এবার দেখবি তোরে কতগুলো পিঠে দেয়।


লটকের পক্ষ থেকে বোনাস


লটকে আর দাদুর মধ্যে কথা হচ্ছে::

লটকে:: দাদু দাদু সুখি ট্যাবলেট কি গো??
দাদু:: ধুর হারামজাদা।। আমি জানি না।
লটকে:: এই জন্যিই তো তোমার ১৩-১৪ ডা ছেলেমেয়ে।


লটকে আর বন্ধু মাঝে কথা হচ্ছে::

বন্ধু;:: এই লটকে !! শুনলাম তুই নাকি তোর গার্লফ্রেন্ড এর কাছ থেকে পয়সা কড়ি নিচ্ছিস খুব।
লটকে:: হ্যা নিচ্ছি তাতে তোর কি।
 বন্ধু:: আরে আমার তো কিছু না। কিন্তু তুই একসাথে এতগুলো গার্লফ্রেন্ড রাখিস কেন?
লটকে:: এই ব্যাপার। আসলে  আজকাল জিনিস পাতির যে দাম। একজনের ঘাড়ে সব চাপাই না দিয়ে কয়েকজনের উপর দিই।। তাতে একটু বোঝাটাও কম হয়।



গার্লফ্রেন্ড  আর লটকের মাঝে কথা হচ্ছে::

গার্লফ্রেন্ড  :: আচ্ছা তোমার যখন মন খারাপ হয়ে বা রাগ হয় তখন তুমি কি করো?
লটকে:: তখন আমি মন্দিরে যাই , মসজিদে যাই।।
গার্লফ্রেন্ড :: কেন তুমি মন্দিরে মসজিদে কি করো।
লটকে:: লোকের সব জুতো গুলো এদিক ওদিক করে দিয়ে আসি।





0 Comments:

Post a Comment